নিদাস ট্রফিতেও কোচ শূন্য থাকছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

দক্ষিন আফ্রিকা সিরিজের পর থেকেই গুরুশূণ্য হয়ে আছে সাকিব-তামিমরা।

বর্তমানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের দায়িত্বে আছেন টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। যে কোনো দলের সাফল্যের পেছনে মূল অবদান থাকে কোচিং স্টাফদের। কিন্তু বাংলাদেশের সাবেক গুরু চান্ডিকা হাথুরুসিংহে চলে যাবার পর থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো নতুন কোচের ব্যবস্থা করতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) । সেই ত্রিদেশীয় সিরিজ হতে সিনিয়র ক্রিকেটাররা ও খালেদ মাহমুদ সুজন মিলে দল পরিচালনা করছে। যা যেকোনো দলের জন্য মোটেও সুখকর নয়।

বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেছেন “ আমরা অনেক দিন ধরেই ভালো কোচের সন্ধানে আছি, কিন্তু নামিদামি কোচরা দীর্ঘ সময়ের জন্য বাংলাদেশে আসতে চাননা। যার কারনে কোচ খুঁজতে একটু বেশি সময় নিচ্ছি। আমরা অনেক কোচের সাক্ষাতকার নিয়েছি, কিম্তু তারা বাংলাদেশ দলের জন্য উপযুক্ত নয় বলেই তাদের সাথে আমরা চুক্তি করিনি।“

তিনি আরো বলেছেন, “আসন্ন নিদাস ট্রফির আগে হেড কোচ যোগ দেবার সম্ভাবনা ক্ষিন”। তাছাড়া নিদাস ট্রফি শুরু হতে আর মাএ ১ মাস বাকি তাই এই সময়ের আগে কোনো কোচ এসে দলের সাথে যোগ দেবার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। নিদাস ট্রফির ৭০তম আসরে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত ও শ্রীলংকা অংশগ্রহণ করবে। এই ট্রফির সবগুলো ম্যাচই টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে হবে। মার্চের ৮ তারিখে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে লংকা মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ।

চান্ডিকা হাথুরুসিংহে বাংলাদেশের কোচ ইস্যুতে গনমাধ্যমকে বলেছেন “ আমি অক্টোবরে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছিলাম, তারপরে ৪ মাসের মতো সময় পেয়েছিলো বিসিবি, কিন্তু এই সময়ে নতুন কোনো কোচকে নিয়োগ না দেয়াতে আমি বিস্মিত”।

যে কোনো দলের জন্য কোচ ছাড়া ভালো করাটা কঠিন। উল্লেখ্য ব্যাটিং কোচ থিলান সামারাবিরা চলে যাবার পর এখনো কোনো  ব্যাটিং কোচের নিয়োগ দেয়নি বিসিবি।  নিদাস কাপের আগে যে ব্যাটিং কোচও জোগাড় করতে পারবেনা বিসিবি তা নিশ্চিত। এখন দেখার বিষয় আর কত দিন কোচ ছাড়া টাইগারদের ক্রিকেট খেলতে হয় ???

আরমান হাসান (প্রতিবেদক), মাঠের খেলা

 

 

Be the first to comment on "নিদাস ট্রফিতেও কোচ শূন্য থাকছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*