বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাথে আর কাজ করতে ইচ্ছে করছে না

সম্প্রতি ঘরের মাঠে লংকানদের বিপক্ষে ঢাকা টেষ্টে মাত্র আড়াই দিনে হারের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তামিম-রিয়াদদের পাশাপাশি নির্বাচক-কোচদের মুন্ডুপাত চলছে।

শুরুটা হয়েছিলো দক্ষিণ আফ্রিকা  সিরিজ থেকেই। টাইগারদের হতশ্রী পারফরম্যান্সের কারনে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফলতম কোচ হাতুরু বিদায়ে যেন অভিভাবকশুন্য হয়ে যায় স্বাগতিকরা। ট্রাইনেশন সিরিজ এবং টেষ্ট সিরিজে কোচ ছাড়াই খেলতে হয়েছে তামিম-মুশফিকদের। তবে টেকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে ছিলেন খালেদ মাহমুদ সুজন। এই দুই সিরিজে টাইগারদের হতাশাজনক পারফরম্যান্সের জন্য তাই ফেসবুক-টুইটারসহ নানা সোশাল মিডিয়াগুলোতে সুজনকেই দায়ী করা হচ্ছে বলে জানান জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে হতাশাকন্ঠ মনে সেকথাই জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক এবং টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ। “আমি আর কাজ করতে আগ্রহী নই বাংলাদেশের ক্রিকেটের সাথে কাজ করতে ইচ্ছে করছে না এই জায়গাটা নোংরা লাগতেছে এত বছর বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে কাজ করছি, বাংলাদেশের উন্নতির জন্যই কাজ করছি। এখানে আমার কোন স্বার্থ নাই।“

নোংরা জায়গাটা কেমন, সেই ব্যাখ্যা চাওয়া হলে খালেদ মাহমুদ সংবাদমাধ্যমকে জানান,“অন্য কিছু নয়। বলার কিছু নেই। আপনারাও জানেন, আমরাও জানি। নোংরা বলতে গেলে যে, মিডিয়ায় যেভাবে বলা হয় আমাদের ক্রিকেটের একটা বড় অন্তরায় মিডিয়াও। আমরা এত ‘ফিশি’ হয়ে যাচ্ছি আস্তে আস্তে, মিডিয়ার কারণে আমাদের ক্রিকেট আটকে আছে কিনা, সেটাও একটা প্রশ্ন এখন আমার কাছে।”

আবেগ্র আপ্রুত হয়ে সুজন এ সময় আরও বলেন, “সবার মতে, আমি বাংলাদেশের জন্য ভালো কিছু করছি না, তাহলে এখানে আমার থাকার দরকার কি?’

তোফায়েল আহমদে খান (প্রতিবেদক), মাঠের খেলা

 

 

 

Be the first to comment on "বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাথে আর কাজ করতে ইচ্ছে করছে না"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*