জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মিরপুরে মাঠে নামবে টাইগাররা

মিরপুরের স্পিনিং ট্র্যাকে আক্রমনাত্বক মেজাজেই খেলবে বাংলাদেশ।

প্রথম টেষ্টে ব্যাটিং বান্ধব উইকেট পেলেও মিরপুরের উইকেটে যে স্পিনাররা সহায়তা পাচ্ছে তা প্রায় নিশ্চিত। তাই এই ধরনের পিচে জয়ের মনোভাব নিয়েই খেলবে, এমনটাই জানালেন টাইগার কাপ্তান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। অন্যদিকে টার্নিং উইকেটে স্বাগতিকদের আধিপত্য থাকলেও নিজেদের স্পিনারদের উপরও আস্থা আছে সরফরকারী শ্রীলঙ্কা দলের অধিনায়ক দিনেশ চান্দিমালের। সিরিজ নির্ধারনী শেষ টেস্টে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় মুখোমুখি হবে দুদল।

প্রথম টেষ্টে ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় লংকানদের বিপক্ষে ড্র করে স্বাগতিকরা। তবে স্লিপের ব্যর্থতা ভুগিয়েছে স্বাগতিকদের।  তাইতো স্লিপের ব্যর্থতা ঘুচাতেই ঢাকা টেষ্টের তড়িঘড়ি করে সাব্বিরকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ম্যাচের আগে সেন্টার উইকেটের পাশে রিচার্ড হ্যালসলের সাথে বাড়তি সময় কাটিয়েছেন হার্ড হিটার এই ব্যাটসম্যান। তার এই নিবিড় অনুশীলনের পর একাদশে তার জায়গা পাওয়ার সম্ভাবনা এখন প্রবল। সাব্বিরকে জায়গা করে দিতে একাদশ থেকে বাদ পড়তে পারেন মোসাদ্দক হোসেন। অবশ্য সকালে পিচ দেখে একাদশ সাজাতে চান টাইগার অধিনায়ক।

মিরপুরের উইকেট স্পিনবান্ধব হবে, এই চিন্তা থেকে একাদশে সাদা পোশাকে ফিরতে পারেন বর্ষীয়ান স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। যদিও প্রথম টেষ্টে তাকে সাইডলাইনেই বসে থাকতে হয়। মিরপুরের আগের দুইটি টেষ্ট ম্যাচে ইংল্যান্ড এবং অষ্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যথাক্রমে ৩ ও ৪ দিনেই খেলা শেষ হয়। তাই ঢাকার মাঠে ফল আসার সম্ভাবনা প্রবল। সেজন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৪ নম্বর উইকেট।

অন্যদিকে ঘরের মাঠে টাইগাররা যে দুর্দান্ত দল তা মেনে নিয়েছেন লংকান কাপ্তান দিনেশ চান্দিমাল। তবে নিজ দলের ক্রিকেটারদের উপরও তার রয়েছে আস্থা, এক্ষেত্রে সিনিয়রদের বাড়তি দায়িত্ব নেয়ার তাগিদ দিলেন তিনি। ঢাকা টেষ্টে লংকানদের তুরুপের তাস হতে পারেন চায়নাম্যান লাকশান সান্দাকান। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে চান্দিমাল জানান, “ঢাকা টেস্টের উইকেটে টার্ন হবার কথা তাই দাপট থাকবে স্পিনাররা। এই মাঠে বাংলাদেশ খুবই শক্তিশালি প্রতিপক্ষ, তাইতো ভাল ফল পেতে সেরাটা দিতে হবে আমাদের। মুমিনুল কে নিয়ে বাড়তি পরিকল্পনা তো থাকছেই। “

তোফায়েল আহমদে খান (প্রতিবেদক), মাঠের খেলা

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *