লিটল মাস্টারের হৃদয়টা কিন্তু অনেক বড়

বাংলাদেশের ব্রাডম্যান মুমিনুলেরর চওড়া ব্যাটে ড্র করলো টাইগাররা।

৪র্থ দিন শেষে মুমিনুলের ব্যাটে ভর করে লংকানদের বিপক্ষে ড্র করে টাইগাররা। চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছেন মুমিনুল। মূলত বাংলাদেশ যে প্রথম ইনিংসে ৫১৩ রান করেছে তার মূল কারিগর ছিলেন মুমিনুল। প্রথম ইনিংসে তার ব্যাট থেকে আসে ১৭৬ রানের এক অসাধারন ইনিংস। কিন্তু প্রচন্ত চাপের মুখে ২য় ইনিংসে তার করা সেঞ্চুরীর কারনেই মূলত এই টেষ্টে হার এড়ায় স্বাগতিকরা। ২য় ইনিংসে তার ব্যাট থেকে আসে ১০৫ রান।  তার এমন পারফরম্যান্সে মুগ্ধ ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক রিয়াদ জানান, ‘মানুষ ছোট, কিন্তু কাজ বড় করে। একটা কথা বলবো ওর (মুমিনুল) হৃদয়টা বড়। অনেক বড় হৃদয়ের মানুষ এবং এ জন্যই ও আল্লাহর রহমতে বাংলাদেশের জন্য ধারাবাহিকভাবে ভালো করছে। দোয়া করি সামনে ও আরো ভালো করবে।’

৪র্থ দিন শেষে যখন শেষ বলে মুশফিক আউট হন, তখন মুমিনুল হয়ে উঠেন টাইগারদের ভরসার নাম। তাই প্রচন্ড চাপের মুখে যখন ৫ম দিনে লিটনকে সাথে নিয়ে মুমিনুল ১৮০ রানের যে জুটি গড়েন তাতেই দারুণ খুশি মাহমুদউল্লাহ। কাপ্তানের ভাষায়, ‘আমরা জানি প্রথমেই আমরা তিনটা উইকেট হারিয়েছিলাম। আমাদের মধ্যে যাতে ওই বিশ্বাসটা থাকে যে আমরা বাংলাদেশ দলকে প্রতিনিধিত্ব করছি এবং ওইভাবেই যেনো আমরা সক্রিয় হই, আমাদের অ্যাকশনগুলো যেনো ওই রকম হয়। আলহামদুলিল্লাহ— মুমিনুল ও লিটন আজ খুব ভালো ইনিংস খেলেছে। আমার মনে হয় যে, ওদের ইনিংস খুবই ফাইটিং নক ছিলো। খুব ভালো লেগেছে। ওদের পারফর্ম্যান্সে আমি খুবই খুশি।’

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে রিয়াদ কেবলমাত্র মুমিনুলকে প্রশংসায় ভাসাননি, পাশাপাশি  মুশফিক ও লিটনের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের মাঝেও অনেক ইতিবাচক দিক খুঁজে পেয়েছেন। তবে ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি বোলারদেরকেও আরও ধৈর্য ধরতে বললেন টাইগার কাপ্তান। “ব্যাটসম্যানরা মোটামুটি সবাই রান করেছে। দুর্ভাগ্যবশত মুশফিক ও লিটন সেঞ্চুরি মিস করেছে। তাদের সেঞ্চুরি প্রাপ্য ছিল। ‍মুমিনুল তো অবশ্যই ভালো খেলেছে। তামিম দুটো ইনিংসেই ভালো করেছে। শুরুটা ভালো হয়েছে। ভালো ব্যাটিং অনুশীলন হয়েছে। এই টেস্টের পজিটিভ দিকগুলো নেব আমরা। তবে বোলারদের আরেকটু ধৈর্য নিয়ে বল করতে হবে।”

তোফায়েল আহমদে খান (প্রতিবেদক), মাঠের খেলা

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *