লোয়ার অর্ডারের ব্যাটিং নিয়ে উচ্ছ্বসিত তামিম

নিচের দিকের ব্যাটসম্যানদের উন্নতির জন্য টিম ম্যানেজম্যান্টকে কৃতিত্ব দিলেন বাংলাদেশের এই ড্যাশিং ওপেনার।

তামিম ইকবাল স্বীকার করলেন যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই ম্যাচে জয়ের পেছনে লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদেরই অবদান অনেক। মঙ্গলবারের এই ম্যাচে বাংলাদেশ একটা সময় ১৪৭/২ থেকে ১৭০/৮ এ পৌছে যায়।

এদিন মূলথ সানজামুল, মুস্তাফিজ এবং রুবেলদের অসাধারন ব্যাটিং দলের স্কোর ২০০ ছাড়ায়। তাদের করা মূল্যবান ৪৬ রান দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। স্বাগতিকদের করা ২১৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে গিয়ে মাত্র ১২৫ রানে গুটিয়ে যায় ক্রেমারবাহিনী।

লোয়ার অর্ডারদের এমন ব্যাটিং দেখে এটা নিশ্চিত হওয়া গেলো যে টিম ম্যানেজম্যান্ট তাদের নিয়ে গত ২ মাস ধরে যে কাজ করছে তার সুফল পেতে শুরু করেছে বাংলাদেশ।

বুধবার তামিম সাংবাদিকদের জানান, “আমি সম্পুর্ণ কৃতিত্ব দেবো টিম ম্যানেজম্যান্টকে, তারা নিচের দিকের ব্যাটসম্যানদেরকে নিয়ে গত এক থেকে দেড় মাস যে অসাধারন কাজ করেছে, তা যারা কাছে ছিলো তারাই জানে। মূলত তাদের করা ৪৬ রানের পার্টনারশীপই ম্যাচের পার্থক্য গড়ে  দিয়েছে।“

তিনি আরো জানান, “আমি জানতাম এই পিচে ২০০ রান করতে পারলেই সেটা প্রতিপক্ষের জন্য কঠিক হয়ে যাবে। বিশেষ করে স্পিনারদের বিপক্ষে ব্যাটিং করা এখানে অনেক কঠিন, পাশাপাশি ফাস্ট বোলাররাও এখানে সুবিধা পাবে।“

এই ম্যাচেও সেঞ্চুরির দেখা না পেয়ে হতাশ তামিম। বিশেষ করে গুরুত্বপুর্ণ সময়ে এভাবে আউট হয়ে যাওয়াতেই তামিম নিজের উপর বিরক্ত। মূলত তার আউটের পরই মিডল অর্ডার ভেঙ্গে পড়ে। তাইতো লোয়ার অর্ডারের ব্যাটিংটা এত গুরুত্ব পাচ্ছে এই ম্যাচে।

বাংলাদেশের পরের ম্যাচ শ্রীলংকার বিপক্ষে বৃহস্পতিবার। তবে এই্ ম্যাচে নিচের দিকের ব্যাটসম্যানদের দিকে তাকিয়ে থাকলে হবেনা। টপ অর্ডারদের পাশাপাশি মিডল অর্ডারের ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকেও রান আশা করছে টিম ম্যানেজম্যান্ট।

তোফায়েল আহমদে খান (প্রতিবেদক), মাঠের খেলা

 

Be the first to comment on "লোয়ার অর্ডারের ব্যাটিং নিয়ে উচ্ছ্বসিত তামিম"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*